Ticker

5/recent/ticker-posts

ইউটিউবে যে কোন ভিডিওর ট্যাগ দেখুন খুব সহজেই

আজকে আমি আপনাদের জানাবো কিভাবে আপনি অন্যের ভিডিওতে কি কি ট্যাগ (Tags) ব্যবহার করেছে তা দেখতে পারবেন। মনে করুন আপনি ইউটিউবে একটি ভিডিও আপলোড করবেন, এখন আপনার মত ভিডিও বানিয়ে অনেক আগেই কেউ না কেউ আপলোড দিয়েছে এবং অনেক ভিউ আসছে। এখন তারা কি কি ট্যা(tags) দেওয়ার ফলে তাদের ভিডিও রেঙ্ক করেছে তা আপনি খুব সহজেই দেখতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে সম্পূর্ন পোষ্টটি পরবেন।
youtube video tag, tag video youtube, youtube video tag finder, youtube video tag generator, youtube video tag search, video tag youtube,video tags finder, video tags, youtube video tags checker, youtube video tags finder, youtube video tags 2020
ইউটিউবে অন্যের ভিডিওর ট্যাগ (Video Tag) দেখার জন্য আমি আপনাদের দুইটা এক্সটেনশন দিবো । এই এক্সটেনশন দিয়ে আপনারা শুধু ভিডিও ট্যাগ (Video Tagনয় কোন কিওয়ার্ড দিয়ে অন্যের ভিডিও ইউটিউবে কত নাম্বারে আসছে তাও দেখতে পারবেন। তার আগে আমরা ভিডিও ট্যাগ সম্পুর্কে জেনে নেই।

ইউটিউবে ভিডিওর ট্যাগ (youtube video tag) কি?

আমরা এমন অনেকেই আছি যারা ইউটিউবে ভিডিও ট্যাগ (Video Tagকি তা জানি না। আমরা যখন ইউটিউবে ভিডিও আপলোড দেই তখন ভিডিওর একটি নাম দিতে হয়, সেই নাম কে আমরা বলি টাইটেল। এরপর ভিডিওতে কি কি আছে তা লেখার জন্য আমরা ভিডিও ডেসক্রিপশন (video description) ব্যবহার করি। এরপর দিতে হয় ট্যাগ (tag)। এখন আপনি যে ভিডিও টি আপলোড দিয়েছেন সেই ভিডিওটি মানুষ কিভাবে খুজে পাবে। তো আপনার ভিডিও যাতে খুজে পান সেই জন্য ভিডিওতে কিছু কিওয়ার্ড দিতে হয়। আর সেই কিওয়ার্ডকেই ভিডিও ট্যাগ (Video Tagবলা হয়। সহজ বাংলায় বলতে গেলে কিওয়ার্ড কেই ট্যাগ (tagবলা হয়।

এক্সটেনশন দুটির নাম হলোঃ
 ১। TubeBuddy
২। VidIQ

তো যেহেতু এগুলো এক্সটেনশন তো ডাউনলোড লিঙ্ক নেই। কিন্তু কিভাবে পাবেন তা বলে দিচ্ছি। আপনি যেই ব্রাউজার দিয়ে ইউটিউব চ্যানেল কন্টল করেন সেই ব্রাউজারে গুগল এ গিয়ে সার্চ দিবেন TubeBuddy/VidIQ Extension Chrome/Firebox। এই লেখা টা লিখে সার্চ দিয়েই এই দুটি এক্সটেনশন সামনে আসবে। এখন কিভাবে এক্সটেনশন ইনিস্টল করতে হয় আশা করি জানেন। যদি না জেনে থাকবেন তাহলে কমেন্ট করবেন।

এখন জেনে নেই এই দুইটি এক্সটেনশনের মধ্যে পার্থক্য কি?

এই দুইটা এক্সটেনশন এর মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। দুইটাই সমান কাজ করে। আপনারা যেকোন একটা ব্যবহার করতে পারেন অথবা এই দুইটি ব্যবহার করতে পারেন কোন সমস্যা হবেন। তো চলুন এই দুইটা এক্সটেনশন কিভাবে একটিভ করবেন।

১। TubeBuddy: TubeBuddy আপনাদের ব্রাউজারে ইনিস্টল করার পরে সরাসরি ইউটিউবে চলে যাবেন। যাওয়ার পরে সবার উপরে আপনাদের চ্যানেল আইকোনের পাশে দেখতে পারবেন TubeBuddy লাল হয়ে আছে। এরপর সেখানে ক্লিক করে আপনারা যেই মেইল দিয়ে ইউটিউব চ্যানেল খুলেছেন সেই মেইল আইডি টি লগিন করে দিবেন, এরপর আপনার চ্যানেল টি সিলেক্ট করে অকে দিবেন। এখন আপনার চ্যানেলের সাথে TubeBuddy এড হয়ে গেছে। এভাবে আপনি যত গুলো চ্যানেলের সাথে এড করাতে চান এই ভাবে কাজ করলেই হবে।

২। VidIQ: VidIQ আপনাদের ব্রাউজারে ইনিস্টল করার পরে সরাসরি ইউটিউবে চলে যাবেন। যাওয়ার পরে সবার উপরে আপনাদের চ্যানেল পাশে VidIQ আইকোন দেখতে পারবেন। সেখানে ক্লিক করবেন ক্লিক করার পরে আপনাকে একাউন্ট করতে বলবে। আপনি আপনার মেইল আইডি দিয়ে একটি একাউন্ট করে নিবেন। তাহলেই আপনার কাজ শেষ।

এখন আপনি যেই ভিডিওর ট্যাগ বা কিওয়ার্ড দেখতে চান সেই ভিডিও প্লে করলেই দেখতে পারবেন ডান পাশে এই এক্সটেনশন গুলো লোড নিচ্ছে । প্রথমত ১মিনিটের মত সময় লাগতে পারে পরে।

এখন এই দুইট এক্সটেনশন দিয়ে কি শুধুই ভিডিও ট্যাগ (Video Tag) দেখা যাবে নাকি অন্য কিছুও করা যাবে। হ্যা, আপনি ভিডিও ট্যাগ (Video Tag) দেখার পাশাপাশি আরো কাজ করতে পারবেন। আপনি যখন আপনার চ্যানেলে কোন ভিডিও আপলোড দিবেন তখন দেখতে পারবেন। আপনার ভিডিওর টাইটেল ঠিক আছে কিনা মানে টাইটেলে কিওয়ার্ড আছে কি না। ভিডিও ডেসক্রিপশনে আপনি যেই লেখালেখি করেছেন তাতে ভিডিও কত পার্সেন্ট এসইও হয়েছে তা জানতে পারবেন। এরপর আপনি যদি ভিডিও ট্যাগে কোন কিওয়ার্ড যুক্ত করেন সেই কিওয়ার্ডের সাথে মিল আছে এমন কিছু কিওয়ার্ড দিবে, যদি আপনি চান সেই কিওয়ার্ড ট্যাগ হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি যখন ভিডিও আপলোড দিবেন তখন আপনি সব কিছু বুঝতে পারবেন, কঠিক কোন কিছু নেই।

আশা এই দুইটি এক্সটেনশন সম্পূর্কে কিছুটা হলেও ধারনা পেয়েছেন। তো আজকের পোষ্ট এখানেই শেষ করছি। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।

ধন্যবাদ।

Post a Comment

0 Comments