Ticker

5/recent/ticker-posts

এসইও (Seo) কি? এসইও (Seo) কেনো করতে হয় বিস্তারিত

এসইও (Seo) নিয়ে অনেক মানুষের অনেক রকমের ধারনা আছে। কেও এসইও (Seo) সম্পর্কে ভালো জানে আবার কেউ কম জানে। আজকের এই পোষ্টি শুধু মাত্র এসইও (SEO) নিয়ে। যারা ইন্টারনেটে নতুন ইউজার আছেন তাদের এই পোষ্টি খুব উপকারে আসবে আশা করি।

আজকে এই পোষ্টে আমরা জানবো এসইও কি (what is seo), এসইও (SEO) কেনো করবেন, এসইও (SEO) কিভাবে কাজ করে [ দয়া করে সম্পূর্ন পোষ্টটি পড়বেন]
 
যারা নতুন ইন্টারনেট ইউজার আছেন তারা সবাই চায় একটি নিজের নামে ( অন্যান্য নামে ) ওয়েব সাইট তৈরি করতে এবং সেই ওয়েব সাইট থেকে টাকা আয় করতে। কিন্তু আমরা চিন্তা করি গুগলে এত হাজার হাজার ওয়েব সাইট মধ্যে আমার ওয়েব সাইটে কিভাবে ভিজিটর আসবে এবং কিভাবে গুগল এর টপ ১০ ভিতরে আসবে। এটা ভেবে আমরা নিজের ওয়েব সাইটে কাজ করা বন্ধ করে দেই।
                                                                  
seo, what is seo, seo tools, seo optimization, seo agency, seo analysis, Seo for beginners, on page seo, off page seo, seo bangla, ranatechtunes,

তো চলুন জেনে নেই কিভাবে এসইও (SEO) নিয়ে কাজ করতে হয়।

(What is Seo) এসইও কিঃ এসইওর সম্পূর্ন নাম হলো Search Engine Optimization. আপনার সাইটের জন্য সঠিক কিওয়ার্ড (keywords) বাছাই করাকেই বলে এসইও (SEO)। এখন কথা হচ্ছে কিওয়ার্ড (keywords) কি? মনে করেন আপনি একটি কিওয়ার্ড (Keywords) নিয়ে পোষ্ট লিখবেন। কিওয়ার্ড এর নাম হলো Android Apps. এখন এই যে Android Apps কিওয়ার্ডটা আছে এটা আপনার পোষ্টে কয়েক বার লিখলেন তাহলেই আপনার পোষ্ট রেঙ্ক এ আসবে, না আসবে না। তার জন্য যা করতে হবে এই Android Apps কিওয়ার্ডটা বিভিন্ন এসইও টুলস (seo tools) এর মাধ্যমে যাচাই বাছাই করতে হবে, এই যাচাই বাছাই করা কেই এসইও (SEO) বলে।

এসইও (SEO) কেনো করবেনঃ গুগল এর প্রথম ১০ টা পেজের ভিতরে আপনার ওয়েব সাইট আনতে হলে আপনাকে এসইও (SEO) করতে হবে। ইউটিউবে যেমন টেগ ছাড়া ভিডিও রেঙ্ক হয় না ঠিক তেমনি ওয়েব সাইটে রেঙ্ক করতে হলে আপনাকে সঠিক এসইও (SEO) করতে হবে। একবার চিন্তা করুন, আজকে যারা গুগলের প্রথম পেজে আছে তারা কি ইন্টারনেটের আবিষ্কারের শুরুতেই কি কাজ করেছিলো, না তারা আপনার মতই শুরু করে ছিলো। শুধু মাত্র তারা তাদের সাইটে ভালো এসইও (SEO) করেছে বলে আজকে তারা গুগল এর প্রথম পেজে এসেছে। আপনিও যদি ভালো ও সঠিক এসইও (SEO) করতে পারেন তাহলে আপনি এক টা না একশ সাইটকেও গুগলে রেঙ্ক করাতে পারবেন ( 100% গ্যারান্টি )

এসইও (SEO) কিভাবে করবেনঃ আগেই বলেছি সঠিক এসইও (SEO) করতে হলে আপনার কিছু টুলস (tools) এর প্রয়োজন হবে। মনে করেন Android Apps একটি কিওয়ার্ড, Android Apps মাসে প্রায় ১০ হাজার বার সার্চ করে মানুষ। এখন আপনি যদি আপনার পোষ্টের টাইটেল এর ভিতরে এই কিওয়ার্ড (keywords) টি লিখলেন, পোষ্টের ভিতরে কয়েক বার লিখলেন, আপনার পোষ্টের লিঙ্ক এর ভিতরে একবার দিলেন, পোষ্টে যে ছবি এড করলেন তার কেপশনেও এই কিওয়ার্ড তা লিখলেন তাহলেই কি আপনার পোষ্ট রেঙ্ক করবে, না করবেন না। আমি যেই চার টা জায়গার নাম বললাম ইন্টারনেটের সবাই এই চার জায়গায় তাদের কিওয়ার্ড লিখে। এখন আপনি বলতে পারেন তাহলে আমার কিওয়ার্ড টি কেনো রেঙ্ক করবে না, তার কারন হলো আপনি যেই কিওয়ার্ড (keywords) টি দিয়ে রেঙ্ক করাতে চাচ্ছেন সেই কিওয়ার্ড দিয়ে অন্য কেউ আগেই ব্যবহার করেছে তাহলে আপনি রেঙ্ক এ কিভাবে আসবেন বলেন। আপনিও এই কিওয়ার্ড দিয়ে রেঙ্ক করতে পারবেন, তার জন্য যেটা করতে হবে খুব ভালো ভাবে পোষ্ট লিখতে হবে। এখন এই কিওয়ার্ড টার জন্য যে ভিজিটর আসবে সে কতখন সময় আপনার এই পোষ্টে থাকছে তার উপর আপনার পোষ্টের রেঙ্ক নির্নয় করবে গুগল। আপনার পোষ্টে বা ওয়েব সাইটে একজন ভিজিটর যদি বেশি সময় থাকে তাহলে আপনার পোষ্টে বা ওয়েব সাইট কয়েক ঘন্টার মধ্যেই রেঙ্ক করবে। এখন আপনি সঠিক ভাবে কিওয়ার্ড দিলেন কিন্তু আপনার পোষ্টে ভিজিটর এসে চলে গেলো তাহলে আপনার পোষ্ট কোন দিনও রেঙ্ক করবে না, তার জন্য ভালো ভাবে পোষ্ট লিখতে হবে।

এখন কিভাবে পোষ্ট লিখবেন আর কিভাবে এসইও টুলস (seo tools) ব্যবহার করবেন তার জন্য আমি আরো দুইটা পোষ্ট করবো, সেখানে আপনি খুব সহজেই সব কিছু বুঝতে পারবেন কিভাবে কাজ করলে আপনার পোষ্ট এবং ওয়েব সাইট খুব তারাতারি রেঙ্ক করবে।
 তো আমরা এই পোষ্ট থেকে জানতে পারলাম এসইও (SEO) কি, এসিও কেনো করবেন, এসিও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে। এখন আশা করা যায় আপনারা এই পোষ্ট থেকে এসইও (SEO) সম্পূর্ক মোটামোটি একটা ধারনা পেয়েছেন। এখন আপনাদের যদি কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হয়ে তাহলে এই পোষ্টের নিচে কমেন্ট করবেন।
 
সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।
ধন্যবাদ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য